মানসিক স্বাস্থ্য কি? মানসিক স্বাস্থ্যের লক্ষণ ও গুরুত্ব !!

 

আসসালামু আলাইকুম

লিখব বিডি আরও একটি নতুন পোস্টে আপনাকে স্বাগতম। আজকের বিষয়  হল মানসিক স্বাস্থ্য কি মানসিক স্বাস্থ্যের গুরুত্ব এবং লক্ষণগুলো কি কি? তাহলে চলুন শুরু করা যাক,

পোস্ট এর সূচিপত্র

  • সুস্থতা কি
  • মানসিক স্বাস্থ্য কাকে বলে
  • মানসিক স্বাস্থ্য রক্ষায় বিদ্যালয়ের ভূমিকা
  • মানসিক স্বাস্থ্যের সুস্থতার গুরুত্ব
  • মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখার খাবার
  • সুস্থতা কি


সুস্থতা কি

প্রথমে বলতে গেলে সুস্থতা হলো আল্লাহ তাআলার পক্ষ থেকে মানুষের জন্য একটি নিয়ামত। সুস্থতা বলতে আমরা এমন একটি অবস্থাকে বুঝি যা আপনার শারীরিক-মানসিক পারিবারিক ভাবে ভালো থাকার নির্দেশ করে। কিন্তু অনেকেই আছে এই সুস্থতা কে আমরা কদর করতে জানিনা।

সুস্থতা সম্পর্কে প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাই সাল্লাম বলেছেন, আল্লাহর পক্ষ থেকে দুটি নিয়ামত আছে যা মানুষের অবহেলার কারণে মানুষকে ক্ষতিগ্রস্ত করে একটি হল সুস্থতা অন্যটি হলো তার অবসর সময় ।

মানসিক স্বাস্থ্য কাকে বলে

সহজভাবে মানসিক স্বাস্থ্য বলতে বুঝায় কোন ব্যক্তি তার নিজস্ব কতটুকু ক্ষমতা রয়েছে তার উপলব্ধি করতে পারে এবং জীবনের বিভিন্ন ঘটনা বা উদ্যোগের সাথে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারে এবং সমাজের সবার সাথে মিশে কাজ করতে পারে।

বিস্তারিত ভাবে বলতে গেলে মানসিক স্বাস্থ্য হল আমাদের প্রাত্যহিক জীবনে যেখানে আমরা অবস্থান করি যেমন সমাজে পারিপার্শ্বিক অবস্থার মধ্যেই আমরা কিভাবে বাস করছি এবং কিভাবে তাদের সাথে প্রভাবিত হচ্ছে এগুলোই মানসিক স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

মানসিক স্বাস্থ্য রক্ষায় বিদ্যালয়ের ভূমিকা

একজন ব্যক্তির মানসিক স্বাস্থ্য রক্ষায় বিদ্যালয়ের ভূমিকা অপরিহার্য। একটি শিশু পরিবার থেকে শিক্ষা লাভ যেখানে প্রথম শিক্ষা গ্রহণ করে তা হল বিদ্যালয়। বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্য রক্ষার উন্নয়ন করা অধিক গুরুত্বপূর্ণ।

একজন শিক্ষার্থী যখন টিনেজ অবস্থান করে তখন শারীরিক ও মানসিক পরিবর্তন চলমান থাকে তারা শারীরিকভাবে দ্রুত বৃদ্ধি হতে থাকে এবং মানসিক পরিবর্তন ঘটে। এই সময় তাদের চিন্তাভাবনার ব্যাপক পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়। ফলে তারা একেক সময় একেক আচরণ করে থাকে।

আমাদের দেশে হাজার হাজার বিদ্যালয় তৈরি হয়েছে। কিন্তু শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্ক যত্নশীল নয়। মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কিত যত্নশীল নাহলে বিষন্নতার অনুভব করতে পারে, লেখাপড়ার প্রতি অমনোযোগী হয়ে পরে ।তাই তাদের মানসিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে শিক্ষক ও অভিভাবকের হতে হবে অত্যন্ত যত্নশীল ।

মানসিক স্বাস্থ্যের সুস্থতার গুরুত্ব

মানুষের চিন্তা, আবেগ ও আচরণ এই তিন মিলেই মানসিক স্বাস্থ্য। মানসিক স্বাস্থ্য গুরুত্ব অপরিহার্য। কেননা আমরা যেকোনো সমস্যায় যখন পতিত হই তখন এই সমস্যার সম্মুখীন হতে গিয়ে আমরা মানসিক বিষন্নতা শিকার হই। তখন আমাদের স্বাভাবিক কাজ ব্যাহত হয় এবং মানসিক অসুস্থতা  সামনে আসে।দেখা যায় আমরা শারীরিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে যথেষ্ট যত্নশীল হই মানসিক স্বাস্থ্যের প্রতি এতটা গুরুত্ব দেইনা। 


ফলে মানসিক স্বাস্থ্য ধীরে ধীরে খারাপের দিকে অগ্রসর হয় কারণ মানসিক স্বাস্থ্য এবং শারীরিক স্বাস্থ্য একে-অপরের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত।

মানসিক স্বাস্থ্যের গুরুত্ব

  • প্রতিদিনের কাজ সুষ্ঠুভাবে করতে পারা।
  • চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হতে পারে
  • বিভিন্ন বিষয়ের দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে পারে
  • নিজের এবং সমাজের উন্নয়নে বেশি ভূমিকা রাখে


মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখার খাবার

বিভিন্ন গবেষণায় বিজ্ঞানীরা দেখেছেন মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য খাবার উক্ত পালন করে যার মধ্যে ভিটামিন অন্যতম এছাড়াও ভিটামিন বি -১২ওমেগা -৩ ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ খাবার মস্তিস্ককে চাঙ্গা রাখতে সাহায্য করে। এছাড়াও বিভিন্ন তাজা ফলমূল ও সবজি মানসিক স্বাস্থ্য চাঙ্গা রাখতে সাহায্য করে ফলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় এবং শারীরিক এবং মানসিক স্বাস্থ্য উভয় সুস্থ থাকে ।

আরও পড়ুন :সেরা ৬ টি স্বাস্থ্য এবং ফিটনেস টিপস।

Leave a Comment