ফ্রিল্যান্সিং বলতে কি বুঝায়? নতুনদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং-২০২২

 

ফ্রিল্যান্সিং বলতে কি বুঝায়? নতুনদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং

আসসালামু আলাইকুম

লিখব বিডি তে আপনাকে স্বাগতম । আশা করি আল্লাহর রহমতে আপনারা ভাল আছেন আল্লাহর রহমতে আমিও ভাল আছি। আজকের আলোচনার বিষয় হলো ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে অনেক কথা অনেকেই শুনেছেন বা শুনছেন তাহলে চলুন শুরু করা যাক আজকের পোস্টের মুল আলোচনায়।

আজকের পোস্টের বিষয়বস্তু।

  1. ফ্রিল্যান্সার কে?
  2. ফ্রিল্যান্সিং বলতে কি বুঝায় ?
  3. ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন?
  4. নতুনদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং ।
  5. কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করবো?
  6. সবচেয়ে জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং কাজ।
  7. ফ্রিল্যান্সিং নিয়ে কিছু কথা ।
  8. ফ্রিল্যান্সিং এর ভবিষ্যৎ কি।

এফিলিয়েট মার্কেটিং কি?Affiliate Marketing করে আয় করুন মাসে হাজার হাজার টাকা !!

ফ্রিল্যান্সিং বলতে কি বুঝায়

ফ্রিল্যান্সিং এর অর্থ হলো স্বাধীন পেশা। ব্যাপক অর্থে কোন নির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠানে নিয়োজিত না থেকে বা মাসিক বেতন ভুক্ত চাকরি না করে নিজের স্বাধীন ভাবে কোন কাজে নিযুক্ত থেকে অর্থ উপার্জন করা কে বুঝায়। বর্তমানে ফ্রিলান্সিং এর চাহিদা যতই বৃদ্ধি পাচ্ছে ততই এর জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

 বর্তমানে অনেক তরুণ-তরুণী এই শব্দটির সাথে পরিচিত হয়ে উঠছে যার মাধ্যমে তারা বাড়িতে বসেই কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট কানেকশনের মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করছে। অন্যভাবে বলতে গেলে বুঝায় ফ্রীলান্সিং হলো এমন একটি মুক্ত পেশা যেখানে আপনি কোন নির্দিষ্ট সময়ে কাজ করা বা শেষ করা কোন বাধ্যবাধকতা নেই যেমন আপনার অফিস শুরু সকাল দশটায় শেষ বিকেল পাঁচটায়।

 ফ্রিল্যান্সিং কোন সময় যে কোন জায়গা থেকে আপনার কাজটি সম্পাদন করতে পারেন এবং মাসিক কোনো বেতন বা অর্থের জন্য আপনাকে কোন নির্দিষ্ট টাইম প্রদান করা হবে না সেখানে আপনি যে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন তা যেকোনো সময়ই উত্তোলন করতে পারেন। এইজন্য বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং এর চাহিদা দিন দিন বাড়ছে এবং বাড়ছে এর পরিধি।

আমাদের দেশে যেহেতু বেকারত্বের হার দিন দিন বাড়ছে তাই অনেক লোক ফ্রিলান্সিং এর প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠেছে। ফলে অনেকেই বাড়িতে বসে হাজার থেকে লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করছে।

ফ্রিল্যান্সার কে

ফ্রিল্যান্সার অনেকেই প্রশ্ন মাথা ঘুরে যে ফ্রিল্যান্সিং এবং ফ্রিল্যান্সার এর মধ্যে পার্থক্য কি। ফ্রিল্যান্সার হল এমন একজন কর্মী যে এক বা একাধিক ক্লায়েন্টের সাথে চুক্তিভিত্তিক কাজ করে এবং এর বিনিময়ে অর্থ উপার্জন করে। সহজভাবে ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে যারা অর্থ উপার্জন করে তাদেরকেই ফ্রিল্যান্সার বলা হয়।

ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন

ফ্রিল্যান্সিং কাজের জন্য কিসের প্রয়োজন বা কি করতে হবে এই সম্পর্কে অনেকেই জানতে চান । এর উত্তরটি হলো ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য প্রথমেই আপনার একটি কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এবং ইন্টারনেট কানেকশন এর প্রয়োজন। যেহেতু ফ্রীলান্সিং একটি ভার্চুয়াল মাধ্যমে কার্যক্রম সম্পাদিত হয় তাই ল্যাপটপ এবং কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট কানেকশন এর গুরুত্ব অপরিসীম। এছাড়াও ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য আপনাকে ভালো ইংরেজি দক্ষতা থাকা প্রয়োজন।

অনলাইন ইনকাম করার সহজ উপায় বাংলা-২০২২। লিখব বিডি

নতুনদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং

অনেকের প্রশ্ন থাকে নতুনরা কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করতে পারে? এর উত্তরটি হলো বর্তমানে ফ্রিল্যান্সারদের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং দিন যতই যাচ্ছে ততই প্রতিযোগিতা বৃদ্ধি পাচ্ছে এই প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার জন্য আপনার চাই দক্ষতা। যার যত বেশি দক্ষতা সে ফ্রীলান্সিং জগতে তত বেশি এগিয়ে থাকে।

তাই আপনি নতুন হিসেবে যেসব দক্ষতা আপনার থাকতেই হবে যা জানা আবশ্যক তা হল বেসিক কম্পিউটার, ইন্টারনেটের ব্যবহার, ইংরেজি দক্ষতা, কোন নির্দিষ্ট নিস বা আপনি যে কাজ শিখতে চাচ্ছেন তার ওপর আপনার পছন্দ ।

কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করবো

কিভাবে আপনি ফ্রিল্যান্সিং শুরু করবেন তার উত্তরটি হলো আপনার যেকোনো একটি কাজের দক্ষতা তৈরি করে আপনার ফ্রিল্যান্সিং কাজ শুরু করতে পারেন।এছাড়াও আপনি আরো বিস্তারিত জানতে ফ্রিল্যান্সিং করে এমন প্ল্যাটফর্ম যেমন আপওয়ার্ক, ফ্রিল্যান্সার ডট কম, ফাইবার, পিপল পার আওয়ার, গুরু ইত্যাদি মার্কেটপ্লেস ভিজিট করার মাধ্যমে আপনি ক্যাটাগরি অনুযায়ী কোন কাজ শিখে আপনার গিফট তৈরি করে সেখানে আপনার সেবা প্রদানের মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

সবচেয়ে জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং কাজ

সবচেয়ে জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং কাজ সম্পর্কে লিখব বিডিতে একটি একটি পোস্ট করা হয়েছে যেখানে বিস্তারিতভাবে বর্ণনা করা হয়েছে যে আপনি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কি কি কাজ বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় তাই এই সম্পর্কে নিচের দেওয়া লিঙ্ক থেকে আপনি জেনে নিতে পারেন বর্তমান ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস এ কি কি কাজ সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং আপনার জন্য আনন্দদায়ক হবে। তাই দেরি না করে নিচের লিংকে প্রবেশ করে পোস্টটি পড়ুন।

ফ্রিল্যান্সিং এ কি কি কাজ করা যায়? লিখব বিডি ডট কম !!

ফ্রিল্যান্সিং নিয়ে কিছু কথা

ফ্রিল্যান্সিং বর্তমানে সবচেয়ে ট্রেন্ডিং এবং লাভজনক পেশা। এখানে আপনাকে কোনরকম কোন বিনিয়োগের প্রয়োজন হয় না বা কোন মালিকের নির্দিষ্ট কাজ সম্পাদন করতে হবে তার কোন বাধ্যবাধকতা থাকেনা তাই আপনি যেকোনো সময় যেকোনো লোকের আপনার দক্ষতা অনুযায়ী সেবা দেওয়ার মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

এছাড়াও ফ্রিল্যান্সিং নিয়ে কিছু অসুবিধা রয়েছে এরমধ্য হল যারা ফ্রিল্যান্সিং করতে চাই বা ভবিষ্যতে করবে তাদের জন্য অবশ্যই ধৈর্য থাকতে হয়। অনেকেই হয়তো এই ধৈর্যের অভাব ফ্রিল্যান্সিং থেকে নিরাশ হয়ে ফিরে যায়। 

এছাড়াও অনেক স্ক্যাম সাইট তৈরী হয়েছে যেগুলোর মধ্যে প্রলোভন দেখার মাধ্যমে আপনি প্রলুব্ধ হয়ে সেখানে কাজ করেন কিন্তু পরবর্তীতে পেমেন্ট পায়না। তাই আপনাকে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করার জন্য যে জনপ্রিয় মার্কেট গুলো আছে সেখানে নিবন্ধন করে কাজ শুরু করলেই সবচেয়ে ভালো ফল পাবেন বলে আমি মনে করি।

ফ্রিল্যান্সিং এর ভবিষ্যৎ কি

দিন যতই যাচ্ছে ততই মানুষের কাজের চাহিদা বা চাপ কমছে। কারণ বর্তমানে তথ্যপ্রযুক্তির যুগে অনেক কাজই এখন মানুষের পরিবর্তে রোবট মেশিন ব্যবহার করা হচ্ছে যার মাধ্যমে অনেক কাজই এখন মানুষ ছাড়াই সম্পাদন করা যায়। ফলে ফ্রিলান্সিং এর ভবিষ্যৎ সম্পর্কে বলতে গেলে আপনার দক্ষতা উন্নয়নের কোন কমতি রাখা যাবেনা যুগের সাথে তাল মিলিয়ে আপনাকেও আপনার দক্ষতা কে এগিয়ে নিতে হবে। যাতে করে কোন কাজ চাহিদা কমে গেলেও আপনি অন্য কাজ সহজে করার মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

লিখব বিডি থেকে আয় করুন প্রতিদিন ২০০ থেকে ৪০০ টাকা পর্যন্ত!! (বিকাশে পেমেন্ট)

আজকে এই পর্যন্তই আশা করি পোস্টটি পড়ে আপনাদের ভাল লেগেছে যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে আপনি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে পারেন এবং লিখব বিডি এর সাথে থাকবেন।

ধন্যবাদ

Leave a Comment