বয়স্ক ভাতা অনলাইন আবেদন

বয়স্ক ভাতা অনলাইন আবেদন

আপনি কিভাবে অনলাইনে বয়স্ক ভাতার আবেদন করবেন এ সম্পর্কে আজকের পোস্টের বিষয় । লিখব বিডি নতুন একটি পোস্টে আপনাকে স্বাগতম। আজকের আপনাদের দেখানো হবে কিভাবে আপনি অনলাইনের মাধ্যমে বয়স্ক ভাতার আবেদন করবেন।

বয়স্ক ভাতা হচ্ছে সরকারের একটি আর্থিক কর্মসূচি যেখানে সরকার বিভিন্ন ধরনের বয়স্ক, দুস্ত, কর্মহীন এবং স্বল্পআয়ের লোকদেরকে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করে থাকে এবং তাও আবার তাদের কাগজপত্র বাছাই করার মাধ্যমে।

আজকের পোস্টের বিষয়বস্তু

  • বয়স্ক ভাতা অনলাইন আবেদন ২০২২
  • বয়স্ক ভাতা আবেদন ফরম
  • বয়স্ক ভাতা আবেদন ফরম pdf
  • বয়স্ক ভাতা আবেদন যাচাই
  • বয়স্ক ভাতা আবেদনের শেষ তারিখ
  • বয়স্ক ভাতা কার্ড ডাউনলোড

বয়স্ক ভাতা অনলাইন আবেদন ২০২২

অনেকে হয়তো আপনার পরিবারের বয়স্ক ব্যক্তির জন্য ভাতার জন্য আবেদন করতে চান। কিন্তু কিভাবে অনলাইনে আবেদন করতে হয় সেই সম্পর্কে জানেন না। তাই আজকের পোস্টে এই সম্পর্কে বিস্তারিত বলার চেষ্টা করব।
যেহেতু বর্তমানে মোবাইল বা কম্পিউটার ব্যবহার করার মাধ্যমেই অনলাইন বয়স্ক ভাতার আবেদন করা যায় এবং পাশাপাশি মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে আপনি আপনার ভাতা গ্রহণ করতে পারেন তাই আপনার উচিত এখনই বয়স্ক ভাতা জন্য আবেদন করা।

১.প্রথমে আপনাকে গুগোল এ গিয়ে লিখতে হবে ভাতা ডট গভ বিডি ওয়েবসাইটে যান।
২. এরপর যার জন্য আবেদন করবেন তার জন্ম পরিচয় পত্র নম্বর এবং জন্ম নিবন্ধন এর মাধ্যমে প্রয়োজনীয় ঘরগুলো ফিলাপ করবেন।
৩. তারপর উক্ত ফর্ম কি চেয়ারম্যান পৌরসভা কাউন্সিল থেকে স্বাক্ষর নিয়ে উপজেলা সমাজসেবা অফিসার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিন।

বয়স্ক ভাতা আবেদন ফরম pdf

বয়স্ক ভাতা আবেদন ফরম পিডিএফ পেতে হলে আপনাকে প্রথমেই যে নির্দিষ্ট ঘরগুলো ফিলাপ করতে হবে সেটি ফিলাপ করার মাধ্যমে আবেদন করুন এই অপশনে ক্লিক করে আপনাকে প্রিন্ট করার একটি অপশন আসবে সেখান থেকে আপনি উক্ত ফরমটি ডাউনলোড করতে পারেন বা ওই ফর্ম প্রিন্ট করতে হবে। আপনি যে ফরমেটে ডাউনলোড করবেন সেটি হল পিডিএফ ফরমেট।

বয়স্ক ভাতা আবেদনের শেষ তারিখ

বয়স্ক ভাতা আবেদনের শেষ তারিখ বলতে বুঝায় যখন প্রতিবছরই নতুন করে বয়স্ক ভাতার আবেদন গ্রহণ করা হয় সেখানে উল্লেখ করা থাকে যেখানে আপনি আবেদনের শেষ তারিখ উল্লেখ থাকে সেই তারিখ অনুসারে আপনি আপনার আবেদনটি পড়া শেষ করবেন।

বয়স্ক ভাতা আবেদন যাচাই

বয়স্ক ভাতা আবেদন যাচাই করার জন্য প্রথমেই যে স্থান থেকে বা যে এলাকা থেকে আবেদন করবেন সেখানে একটি কমিটি থাকে যারা যাচাই-বাছাই করার মাধ্যমে আবেদন গ্রহণ করে।

১.এক্ষেত্রে প্রথমে আপনাকে বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে ।
২. সবচেয়ে বয়স্ক ব্যক্তিদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে।
৩. স্বাস্থ্যের অবস্থা যেমন শারীরিকভাবে অক্ষম বা সম্পূর্ণ ভাবে অক্ষম।
৪. জমির মালিকানা আপনার যদি কোন জমির পরিমাণ কম হয় যা ভূমিহীন বলে বিবেচিত হবে।

উপরে উল্লেখিত বিষয়গুলো বিবেচনা করার মাধ্যমে বয়স্ক ভাতা আবেদনগুলো যাচাই করা হয়।

Leave a Comment